শীর্ষ সংবাদ

লোহাগাড়ায় কর্মজ্যোতি জিনানন্দ মহাথের জাতীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠান সম্পন্ন

আজ শুক্রবার (৫ মার্চ)পার্বত্য চট্টগ্রামে মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং জানান,কর্মই মানুষকে বাঁচিয়ে রাখে। মানুষের এমন কাজ করা উচিত যে কাজ তার অনুপস্থিতিতেও সবাই স্মরণ করবে।আজ লোহাগাড়ার বড়হাতিয়া খুসাঙ্গের পাড়া মহাবোধি বিহারে খ্যাতিমান সংঘমনীষা কর্মজ্যোতি জিনানন্দ মহাথের’র জাতীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। বীর বাহাদুর উশৈসিং বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সম্প্রীতির বাংলাদেশ আজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। এই এগিয়ে যাওয়ার জন্য দেশের সব মানুষকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। অনুষ্ঠানে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেন, ধর্ম নিরপেক্ষতার আদর্শে উজ্জ্বীবিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসাম্প্রদায়িক সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। স্বাগত বক্তব্যে আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সব সম্প্রদায়ের মানুষকে এক করেছেন। সম্প্রীতির এ বন্ধন কোনো শক্তিই আর বিভক্ত করতে পারবে না। বাংলাদেশী বৌদ্ধদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় গুরু সংঘরাজ ড. জ্ঞানশ্রী মহাথের’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল, জাফর আলম, ওয়াসিকা আয়শা খান, আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক সিরাজুল মোস্তফা, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. আনোয়ার হোসেন, জেলা প্রশাসক মো. মমিনুর রহমান, পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক, বাংলাদেশ বৌদ্ধ সমিতির চেয়ারম্যান অজিত রঞ্জন বড়ুয়া, বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভা’র সভাপতি জ্ঞাননিধি বুদ্ধরক্ষিত মহাথেরো।

উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের মাহেন্দ্রক্ষণকে উদযাপন করবে পুলিশ: আইজিপি

আজ শুক্রবার(৫মার্চ) ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ জানান,স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ প্রাপ্তি জাতির জন্য এক মাহেন্দ্রক্ষণ ও দুর্দান্ত অর্জন।এ উপলক্ষে আজ রাজারবাগ পুলিশ অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় পুলিশ প্রধান এ সব কথা জানান।তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ ও উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে উত্তরণের মাহেন্দ্রক্ষণকে উদযাপন করবে বাংলাদেশ পুলিশ। বেনজীর আহমেদ বলেন, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের এ অর্জন আগামী ৭ মার্চ সারাদেশে উদযাপন করবে পুলিশ। আইজিপি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ভিশন, দুরদর্শিতা ও দুঃসাহসিক নেতৃত্ব এবং ১৮ কোটি মানুষের ৩৬ কোটি পরিশ্রমী হাত সম্মিলিতভাবে এই অর্জনকে সম্ভব করেছে। গত ২৬ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ হতে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে চূড়ান্ত সুপারিশের ঘোষণা দেয় জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসি (ইউএন সিডিপি)। এটা আমাদের জন্য একটা মাহেন্দ্রক্ষণ এবং ঐতিহাসিক অর্জন। বিগত ৫০ বছরে পৃথিবীর মাত্র ৫ টি দেশ এটা অর্জন করতে পেরেছে। স্বাধীনতার ৫০ বছর পুর্তি এবং জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীতে বাংলাদেশের এ অর্জন এক ঐতিহাসিক মাইলফলক বলে উল্লেখ করেন আইজিপি। বাংলাদেশের এ ঐতিহাসিক অর্জনকে দেশবাসীর সঙ্গে সম্মিলিতভাবে উদযাপন করতে আগামী ৭ মার্চ বিকাল ৩টায় পুলিশের সকল থানায় একযোগে আনন্দ আয়োজনের ঘোষণা দেওয়া হয়। আইজিপি বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৭ মার্চের সেই ঐতিহাসিক ভাষণে যে অমোঘ বার্তা নিয়ে এসেছিল সে বার্তায় আমরা মুক্ত ও স্বাধীন দেশের নাগরিক। আমাদের নিজস্ব পতাকা আছে, মানচিত্র আছে। প্রিয় মাতৃভূমি আমাদের স্বাধীন। ৭ মার্চের ভাষণ ইউনেস্কো কর্তৃক ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ ডকুমেন্ট (বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য) হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। যেটি জাতি হিসেবে আমাদের জন্য অনন্য অর্জন’।

রামগড়ে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু এখন বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত

রামগড় প্রতিনিধিঃআজ শুক্রবার(৫ই মার্চ) খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা রামগড় উপজেলায় স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বাংলাদেশ-ভারতের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০বছর পূর্তি উপলক্ষে আগামী ২৬শে মার্চ বাংলাদেশের মহোৎসবে শামিল হবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তখন আনুষ্ঠানিক ভাবে বাংলাদেশের ফেনী নদীর উপরে নির্মিত বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী-১ সেতুটির উদ্বোধন করবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।রামগড়ের মহামুনি মৈত্রী সেতু-১ পরিদর্শন করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মাসুদ বিন মোমেন এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, সেতুটি উদ্বোধন হলেও সেতুর কার্যক্রমে আরো আনুষ্ঠানিকতা রয়ে গেছে। সেতুটির ফলে দুই দেশের মধ্যে অর্থনৈতিকভাবে অনেক অগ্রগতি সৃষ্টি হবে। পররাষ্ট্র সচিব তিস্তা চুক্তির ব্যাপারে ভারতের পররাষ্ট্র সচিবের সাথে আলোচনা হয়েছে। আগামী ১৬ই মার্চ ভারতের পানি সম্পদ সচিবের সাথে বৈঠক করার কথা রয়েছে এরপরেই দুই দেশের পানি সম্পদ মন্ত্রীদের বৈঠক হবে। আমরা আশাবাদী বৈঠকগুলি হলেই তিস্তাসহ ৬টি নদীর ব্যাপারে একটা অগ্রগতি হবে। পরিদর্শনে আরো উপস্থিত ছিলেন, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের গোয়েন্দা পরিদপ্তরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আতিকুর রহমান, চট্টগ্রামের জিওসি মেজর জেনারেল মো: সাইফুল আবেদীন, গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোয়াজ্জেম হোসেন, রামগড় জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল আনোয়ারুল মাযহারসহ পদস্থ কর্মকর্তারা। এদিকে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু এখন বিনোদন কেন্দ্রে পরিনত হয়েছে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু। পার্বত্য চট্টগ্রামের খাগড়াছড়ি জেলার বাংলাদেশ-ভারতের প্রথম মৈত্রী সেতু-১ এর কাজ ইতি মধ্যে শেষ হয়েছে। এখন শুধু উদ্বোধনের অপেক্ষায়। প্রতিদিন দুরদুরান্ত থেকে বহু মানুষ দেখতে আসেন এই সেতু। সেতুটি শুধু দু’দেশের সম্পর্ক স্থাপন করেনি, রীতিমত এটি এখন রামগড়ের একটি বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। ২০১৫সালের ৬ই জুন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু-১ এর ভিত্তি প্রস্তুর স্থাপন করেন। ১২৮কোটি ৬৯লাখ ভারতীয় রুপি মুদ্রায় নির্মিত মৈত্রী সেতুটির দৈর্ঘ্য ৪১২মিটার। শুধু খাগড়াছড়ি জেলা নয়, জেলার বাইরে থেকেও প্রতিদিন অনেক মানুষ দেখতে আসেন এ সেতু। বেড়াতে আসা পর্যটকদের দাবি, সেতু ও স্থল বন্দর চালু হলে যেন দু’দেশের মানুষের জন্য এখানে একটি বিনোদন কেন্দ্র গড়ে তোলা হয়। রামগড় বাসীদের প্রত্যাশা সেতু ও স্থল বন্দরটি চালু হলে রামগড় তথা খাগড়াছড়ি জেলার আথর্-সামাজিক ব্যবস্থার উন্নয়ন ঘটবে। দেশের বাণিজ্য প্রসারের পাশাপাশি বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জন হবে। এ সেতু ও স্থল বন্দর চালু হলে খাগড়াছড়ি জেলার ঐতিহাসিক মুক্তিযুদ্ধের সময় সহজে যোগাযোগ মাধ্যম পুরাতন মহকুমা শহর রামগড় ফিরে পাবে পুরানো ঐতিহ্য। খাগড়াছড়ির ব্যবসায়ী সুমন মল্লিক ও ঠিকাদার অনন্ত ত্রিপুরা বলেন, সেতুটি দেখতে রামগড়ে এসেছি। এতদিন দু’টি সীমান্তে দূরত্ব থাকলেও এখন সেতুটি দু’দেশের যোগাযোগ এক করেছে। দু’দেশের সম্প্রীতির মেলবন্ধন আরও গভীর হবে। অপর দর্শনার্থী ফারুক আহম্মেদ ও আশরাফ আলী বলেন, রামগড় পার্বত্য অঞ্চলের পুরাতন মহকুমা শহর। রামগড়ের রয়েছে সমৃদ্ধ ইতিহাস। তবে সময়ের পরিক্রমায় উপজেলাটি জৌলুস হারাতে বলেছিল। মৈত্রী সেতু রামগড়ের জন্য নতুন দ্বার উন্মোচন করেছে। সেতুটি শুধু দু’দেশের সম্পর্ক স্থাপন করেনি বরং এটি এখন এ জেলার একটি বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মংসুইপ্রুু চৌধুরী অপু বলেন, ভারত সরকার মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশকে যে সহযোগিতা করেছিল এ সেতুর মাধ্যমে বাংলাদেশের মানুষ তা মনে রাখবে। এটি দু’দেশের সম্পর্ক বৃদ্ধিসহ আত্ম-সামাজিক উন্নয়নেও ভূমিকা রাখবে। স্থানীয়দের দাবি, সেতুটি ঘিরে দু’দিকে যেন দর্শনার্থীদের জন্য বিনোদন কেন্দ্রের ব্যবস্থা করা হয়। উল্লেখ্যযে, ভারতের ন্যাশনাল হাইওয়েস অ্যান্ড ইনফ্্রাস্টাকচার ডেভেলপমেন্ট করপোরেশন লিমিটেড(এনএইচআইডিসিএল) এবং ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান তানিশ চন্দ্র আগারভাগ ইনপাকন প্রাইভেট লিমিটেডের তত্ত্বাবধানে ৮২.৫৭ কাটি টাকা ব্যয়ে রামগড়ের মহামুনিতে ২৮৬একর জমির উপর ৪১২মিটার দৈর্ঘ্য ও ১৪.৮০মিটার প্রস্থের আন্তর্জাতিক মানের মৈত্রী সেতুটি গত ২০১৭সালের ২৭শে অক্টোবর থেকে নির্মাণকাজ শুরু করে দীর্ঘ ৩বছর পর গত জানুয়ারীতে নির্মাণকাজ শেষ করে। ১২টি পিলার সংবলিত সেতুটির বাংলাদেশ অংশে নির্মাণ করা হয়েছে আটটি এবং ভারতের অংশে চারটি পিলার। যাতে স্প্যান রয়েছে ১১টি। এর বাংলাদেশ অংশে সাতটি ও ভারত অংশে চারটি। নদীর অংশে ৮০মিটারের স্প্যান এবং নদীর দু’পাড়ের ৫০মিটারের দু’টিসহ মোট ১৮০মিটার দৈর্ঘ্যের এ তিনটি স্প্যানই হচ্ছে সেতুর মেন স্প্যান। প্রসঙ্গত, ২০১০সালের জানুয়ারিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিল্লি সফরকালে ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের সঙ্গে বৈঠকে রামগড়-সাব্রুম স্থলবন্দর চালুর যৌথ সিদ্ধান্তের পর বাংলাদেশ-ভারত দু’দেশের মধ্যে ট্্রানজিট সুবিধা, যাতায়াত ব্যবস্থা সহজতর করা এবং আমদানি-রফতানি বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২০১৫সালের ৬ই জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু-১ নামে ফেনী নদীর উপর নির্মিত সেতুটির শিলান্যাস করেন। ২০১৭সালের ২৭শে অক্টোবর থেকে মৈত্রী সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়। সেতুর কাজ শেষ হয়েছে, এখন কেবল উদ্বোধনের পালা। সেই প্রতীক্ষায় দিন গুনছেন বাংলাদেশের খাগড়াছড়ির রামগড় ও ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সাব্রুমবাসী।

খাগড়াছড়িতে যুব রেড ক্রিসেন্ট’র স্বেচ্ছাসেবীদের প্রশিক্ষন কর্মশালার উদ্বোধন

আজ শুক্রবার(৫ই মার্চ) খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের উদ্যোগে প্রাথমিক চিকিৎসার উপর ২দিন ব্যাপি এক প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধন করা হয়।আজ জেলা স্কাউট ভবনে আয়োজিত এ প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি খাগড়াছড়ি জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের ভাইস-চেয়ারম্যান এ্যাড. জসিম উদ্দিন মজুমদার। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, খাগড়াছড়ি জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো: শানে আলম ও জেলা রেড ক্রিসেন্ট’র ইউনিট অফিসার আব্দুল গনি। সভাপতিত্ব করেন খাগড়াছড়ি জেলা যুব প্রধান শাহাজ উদ্দিন খন্দকার। জেলা যুব রেড ক্রিসেন্টর পরিকল্পনা বিভাগের প্রধান আব্দুর রহমান এর সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন জেলা রেড ক্রিসেন্ট’র কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মো: শহিদুল ইসলাম। দুই দিন ব্যাপি আয়োজিত এ প্রশিক্ষণে জেলা সদরের ৩২জন যুব রেড ক্রিসেন্ট’র স্বেচ্ছাসেবী সদস্য অংশগ্রহণ করেন। এসময় বক্তারা বলেন, এ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে পরিপূর্ণ একজন ডাক্তার হওয়া যাবে না, তবে বিপদ গ্রস্থ কোনো রোগীকে প্রাথমিক সেবাটুকু দিয়ে জরুরী ভিত্তিতে ডাক্তার কিংবা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কাজটুকু করতে পারাটাই এ প্রশিক্ষণের লক্ষ্য উদ্দেশ্য। এই সেবাটা দেয়ার মাধ্যমেই হয়ত রোগীটা বেঁচে যাবে। সেই সাথে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার মত জ্ঞান অর্জন করে এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে একজন মানুষের যদি উপকৃত হয় তাহলেই এ প্রশিক্ষনের স্বার্থকতা সফল বলে মনে করেন বক্তারা। বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতিসহ বিভিন্ন সময় যুব রেড ক্রিসেন্টের কর্মীরা মানুষের কল্যাণে যে অবদান রেখে যাচ্ছেন সেই প্রশংসাও করেন অতিথিরা। পরে করোনাকালীন সময় সম্মুখ সারিতে থেকে যে সকল যুব রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবীরা কাজ করেছেন তাদেরকে সম্মাননা স্মারক ও সনদ পত্র বিতরণ করেন অতিথিরা।

বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানান,‘বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। এদেশের মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান সম্প্রদায় মিলেমিশে সম্প্রীতির মধ্য দিয়ে বসবাস করে যাচ্ছে।’বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সহসভাপতি কর্মবীর ভদন্ত জিনানন্দ মহাথেরের জাতীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া আয়োজন উপলক্ষে দেয়া এক বাণীতে এ কথা বলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী জানান,হাজার বছরের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়তে আমরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। বাংলাদেশের চলমান উন্নয়ন আজ বিশ্ববাসীর কাছে দৃশ্যমান।’এ দেশের বৌদ্ধ ধর্মের অনুসারীরা দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নসহ সকল প্রকার কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করে আসছেন উল্লেখ করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা লাভে বৌদ্ধ জনসাধারণ ও বৌদ্ধভিক্ষুরা অসামান্য অবদান রেখেছেন। এ দেশের মাটি ও মানুষের সঙ্গে মিশে আছে হাজার বছরের বৌদ্ধ ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি। বাংলাদেশের বিভিন্ন ধর্মের অনুসারীরা আবহমানকাল ধরে পাশাপাশি বসবাস করে সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির এক অপূর্ব দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছেন। এ সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির বন্ধনকে সমুন্নত রাখতে বৌদ্ধধর্মীয় গুরুদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।’ প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামের লোহাগড়া উপজেলার মহাবোধি বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ, বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সহসভাপতি কর্মবীর ভদন্ত জিনানন্দ মহাথেরের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। শেখ হাসিনা আরোও বলেন, ‘কর্মবীর ভদন্ত জিনানন্দ মহাথের অসাম্প্রদায়িক চেতনা ধারণ করে মানবতার কল্যাণে আজীবন কাজ করে গেছেন। তিনি অনেক শিক্ষা ও সেবামূলক প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করেন। দেশ-বিদেশে সংঘ সমাজ ও গৃহী সমাজের ঐক্য, সংহতি, সৌহার্দ্য ও শান্তি প্রতিষ্ঠায় তিনি সারাজীবন ধর্মবাণীর মাধ্যমে উপদেশ দিয়েছেন।’ কর্মবীর ভদন্ত জিনানন্দ মহাথেরের জাতীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া উপলক্ষে ‘জিনানন্দ দ্যুতি’ স্মারক গ্রন্থটির মাধ্যমে জাতীয় জীবনে তার অবদান সম্পর্কে মানুষ জানতে পারবে। এ সুন্দর উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই।’ প্রধানমন্ত্রী এ অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

সোনারগাঁয়ে মাসব্যাপী লোকজ উৎসব

বায়োস্কোপ, পুতুলনাচ, বাউলগানসহ আবহমান বাংলার লোকজ সংস্কৃতির ব্যবহার্য জিনিসপত্রের সাথে, নতুন প্রজন্মের পরিচয় করাতেই নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে চলছে মাসব্যাপী লোকজ উৎসব। করোনা মহামারির জন্য এবার কমেছে কারুশিল্পীদের অংশগ্রহণ। নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনে, পহেলা মার্চ লোকজ এ উৎসব উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। এখানে ৭৫ টি স্টলে প্রদর্শিত হচ্ছে গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী নানা পণ্য। রাজশাহীর শখের হাঁড়ি, বায়োস্কোপ, নওগাঁ ও মাগুরা’র শোলাশিল্প, মুন্সীগঞ্জ ও সুনামগঞ্জের শীতলপাটি, চট্টগ্রামের তালপাতার পাখা, রংপুরের শতরঞ্জি, সোনারগাঁয়ের কাঠের পুতুল, কুমিল্লার তামা কাঁসা, রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ির ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর কারুপণ্য প্রদর্শন ও বিক্রির ব্যবস্থা রয়েছে। করোনা মহামারির জন্য কমেছে কারুশিল্পীদের অংশগ্রহণ। নেই আগের মতো বেচাকেনাও। লোক ও কারু শিল্পের উন্নয়নে এরিমধ্যে ১৪৭ কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে বলে জানান সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী। ঐতিহ্যবাহী নাগরদোলা, পুতুল নাচ, বায়োস্কোপ ও নৌবিহার উপভোগের পাশাপাশি জাদুঘরের বিভিন্ন গ্যালারি ঘুরে দেখছেন দর্শনার্থীরা। উৎসব চলবে ৩০ মার্চ পর্যন্ত। এবার অংশ নিয়েছেন দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের ৪৮ জন কারুশিল্পী।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ১০ দিনের আয়োজন

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে আগামী ১৭ থেকে ২৬ মার্চ পর্যন্ত দশ দিনব্যাপী বিশেষ অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হচ্ছে। করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে এসব অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অংশগ্রহণ করবেন দেশি-বিদেশি অতিথিরা।বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী কমিটির এক ভার্চুয়াল সভায় এসব কথা জানান। সভায় সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম। সভার শুরুতে সম্প্রতি প্রয়াত দুজন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী জাতীয় কমিটির সদস্য প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম এবং সাংবাদিক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব গৃহীত হয় এবং তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ‘মুজিব চিরন্তন’ প্রতিপাদ্যে দশ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালা আয়োজনের সকল প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানমালায় প্রতিদিন পৃথক থিমভিত্তিক আলোচনা অনুষ্ঠান, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, অডিও-ভিজুয়াল এবং অন্যান্য বিশেষ পরিবেশনার মাধ্যমে বঙ্গন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে। দশ দিনের অনুষ্ঠানমালার থিমগুলো হলো- ‘ভেঙেছ দুয়ার এসেছো জ্যোতির্ময়’, ‘মহাকালের তর্জনী’, ‘যতকাল রবে পদ্মা যমুনা’, ‘তারুণ্যের আলোকশিখা’, ‘ধ্বংসস্তুপে জীবনের গান’, ‘বাংলার মাটি আমার মাটি’, ‘নারীমুক্তি, সাম্য ও স্বাধীনতা’, ‘শান্তি-মুক্তি ও মানবতার অগ্রদূত’, ‘গণহত্যার কালরাত্রি ও আলোকের অভিযাত্রা’, এবং ‘স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর ও অগ্রগতির সুবর্ণরেখা’। মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি ইব্রাহিম মোহামেদ সলিহ, নেপালের রাষ্ট্রপতি বিদ্যা দেবী ভান্ডারি এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। এছাড়া দশ দিনের অনুষ্ঠানমালায় বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র প্রধান, সরকার প্রধান, আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধান এবং গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গের ধারণকৃত বক্তব্য সম্প্রচার করা হবে। মুজিববর্ষ যথাযথভাবে উদযাপনের অংশ হিসেবে আয়োজিত এসব অনুষ্ঠান সফলভাবে বাস্তবায়নের বিভিন্ন দিক নিয়ে সভায় বিস্তারিত আলোচনা হয়। সভায় অন্যান্যের মধ্যে সাবেক মন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, সাবেক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, সংসদ সদস্য আরমা দত্ত, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান, জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শহীদ উল্লা খন্দকার, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষ, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. বদরুল আরেফীন, তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব খাজা মিয়া, বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক ড. মো. মইনুর রহমান চৌধুরীসহ জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির কার্যালয়ের কর্মকর্তারা অংশ নেন।

উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার নেত্রী,গণতন্ত্রের মানস কন্যা প্রধানমন্ত্রী (কোভিড-১৯) টিকা নিলেন

বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) বিকেলে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার নেত্রী,গণতন্ত্রের মানস কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় শেখ হাসিনার সঙ্গে ছিলেন তার বোন শেখ রেহানা।প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব এম এম ইমরুল কায়েস রানা এ তথ্য নিশ্চিত করেন। স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে মাস্ক পরা এবং স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়ে আসছেন। এর আগে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি সকালে দেশের প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী ভ্যাকসিন নেন শেখ রেহানা। গত ২৭ জানুয়ারি দেশে বহুল প্রতীক্ষিত ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু হয়। সেদিন এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের একজন নার্স প্রথম ভ্যাকসিন নেন। ভ্যাকসিনের গণপ্রয়োগ শুরু হয় ৭ ফেব্রুয়ারি। তারপর থেকে এ পর্যন্ত ৩৫ লাখ ৮১ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন।

নিউজিল্যান্ডে ভূমিকম্প, আবারও সুনামির সতর্কতা

আজ শুক্রবার(৫মার্চ) নিউজিল্যান্ডে দফায় দফায় আঘাত হেনেছে শক্তিশালী ভূমিকম্প। দেশটির উপকূলে স্থানীয় সময় আজ সকালে ৮ দশমিক ১ মাত্রার শক্তিশালী আরও একটি ভূমিকম্প আঘাত হানে। তৃতীয় ভূমিকম্পের পর আবারও জারি করা হয়েছে সুনামি সতর্কতা। উপকূলীয় লোকজনকে উচু ও নিরাপদ স্থানে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। স্থানীয় সময় আজ সকাল ৯টার আগে উত্তর-পূর্বের কেরমাডেক আইল্যান্ডে শক্তিশালী এই ভূমিকম্প আঘাত হানে। তৃতীয় ভূমিকম্পটি আঘাত হানে সকাল ৮টা ৩০ মিনিটে। ভূমিকম্পের পর দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ আবারও সুনামি সতর্কতা জারি করে দেশটির পূর্ব উপকূলে ‘অকল্পনীয় জলোচ্ছ্বাসের’ ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে বাসিন্দাদের। তৃতীয় দফায় সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর নিউজিল্যান্ডের বেশ কিছু শহরের মানুষের মধ্যে উঁচু স্থানে যাওয়ার হিড়িক পড়ে গিয়েছে। দিগ্বিদিক হয়ে মানুষজন ছোটাছুটি করছেন। এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টা ২৭ মিনিটে প্রথম ৭ দশমিক ২ মাত্রার এবং ভোর ৬টা ৪১ মিনিট দ্বিতীয়বার ৭ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল দেশটি। কর্তৃপক্ষ সমুদ্রতীরবর্তী কিছু এলাকার লোকজনকে দ্রুত উঁচু স্থানে আশ্রয় নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে। প্রথম ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়েছিল। পরে সুনামি সতর্কতা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। কিন্তু শুক্রবার সকালে আগের দুটির চেয়ে শক্তিশালী তৃতীয় ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর কর্তৃপক্ষ আবারও সুনামি সতর্কতা জারি করতে বাধ্য হয়েছে।

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় বিআরটিএ অফিসের কর্মকর্তা নিহত

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় মাসুদ রেজা বসুনিয়া নামে বিআরটিএ অফিসের কর্মকর্তা নিহত হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার গুয়াগা এলাকায় প্রাইভেট কারের চাঁকা বিকল হলে এ দূর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, প্রাইভেট কার যোগে রানীশংকৈল উপজেলায় নানির বাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার পথে হঠাৎ তার প্রাইভেট কারের সামনের চাঁকা বিকল হয়ে গাড়িটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পরে যায়। এসময় ঘটনাস্থলেই মারা যায় ওই কর্মকর্তা। মাসুদ রেজা নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর পৌরসভার ১১ নং ওয়ার্ড নতুন বাবু পাড়া গ্রামের মৃত মশিউর রহমানের ছেলে । নিহত মাসুদ রেজা নীলফামারী জেলার বিআরটিএ অফিসের কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন । এ বিষয়ে পীরগঞ্জ থানার ওসি প্রদীপ কুমার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে মাসুদ রেজা নীলফামারির বিআরটিএ অফিসের কর্মকর্তা ছিলেন। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। সেই গাড়িতে আগের দুজন ছিল তারাও কিছুটা আহত হয়েছে। গাড়িটি থানায় আনা হয়েছে।

লাইভ টিভি

ওয়ার্ড পরিক্রমা

আবু তাহের সর্দারের ১ম মৃত্যুবার্ষিকী আজ বিশিষ্ট বিদ্যুৎসাহী সমাজকর্মী, স্কাউট আন্দোলন এর কর্ণধার ও আলোর কণ্ঠের প্রতিষ্ঠাতা ও বসুন্ধরা শিশু কিশোর সংগঠন এর উপদেষ্টা আবু তাহের সর্দারের ১ম মৃত্যুবার্ষিকী আজ বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা, প্রিয় স্যারের প্রতি আবু তাহের সর্দার স্মরণ সভা কমিটির উদ্যোগে এক স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। কবি ও সাংবাদিক কামরুল হাসান বাদল, বলেন আবু তাহের সর্দার সৎকর্মের মাধ্যমে চিরকাল স্বরণীয় হয়ে থাকবেন। জন্মিলে মরিতে হবে এটি চিরন্তন সত্য। তবুও মানুষ তাঁর সৎকর্মের মাধ্যমে চিরকাল স্বরণীয় হয়ে থাকতে পারে। সেজন্য যাঁরা কীর্তিমান তাঁরা তাঁদের সেবামুলক কাজের মাধ্যমে মানবসমাজে বেঁচে থাকেন বহু যুগ যুগ ধরে। তিনি বলেন, এ নশ্বর পৃথিবীতে সবই ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়। অর্থাৎ, কোনো মানুষই পৃথিবীতে চিরকাল বেঁচে থাকতে পারে না। সেজন্য দেশ ও মানবকল্যাণে নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে যাওয়ার মধ্য দিয়েই আবু তাহের সর্দার অমর হয়ে থাকবেন এ রাষ্ট্র সমাজে। এ জনসমাগম স্মরণ সভা থেকে তা বুঝ যায় তিনি কতবড় ত্যাগী মানুষ ছিলেন। তিনি দীর্ঘ ৬৩ বছর এ রাষ্ট্র সমাজের জন্য শ্রম দিয়েছেন। অসাম্প্রদায়িক চেতনার মুক্ত মনের বিস্ময় প্রতিভা মানুষ ছিলেন আবু তাহের সর্দার। বক্তরা বলেন, মানুষের দুঃখ-দুর্দশাকে লাঘব করতে আবু তাহের সর্দারের প্রচেষ্টা অতুলনীয়; সমাজের আলোক বর্তিকা হয়ে তিনি সমুজ্জ্বল। আবু তাহের সর্দারের কর্মজীবন থেকে শিক্ষা নিয়ে সমাজ বিনির্মানে তরুনদের এগিয়ে আসার শপথ নিতে হবে। অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন আবুল হাসেম, বখতিয়ার উদ্দীন সহ মরহুমের শুভানুধ্যায়ীরা।

খেলা

আজ নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বে টাইগাররা আজ মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি)করোনার কারণে দীর্ঘদিন পর বিদেশ সফরে যাচ্ছে টাইগারবাহিনী।আজ বিকেলে সিঙ্গাপুর এয়ারওয়েজে চড়ে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বে জাতীয় ক্রিকেট দল। নিউজিল্যান্ড সফরে টেস্ট সিরিজ নেই। সমান তিনটি করে ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে টাইগাররা। তবে ভিনদেশি কন্ডিশনের জন্য এবার দেশ থেকে নিজেদের সেভাবে প্রস্তুত করে যেতে পারেনি বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে লড়ার আগে তাদের মাঠেই প্রস্তুতি নিতে হবে টাইগারদের। সিরিজ আগামী মাসে শুরু হলেও, কোয়ারেন্টিন জটিলতা ও কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে বেশ আগেই নিউজিল্যান্ড যাচ্ছে টাইগাররা। সেখানে দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে অনুশীলন করবে বাংলাদেশ দল। এরপর ২০ মার্চ থেকে শুরু হবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। প্রথম ওয়ানডে হবে ডানেডিনে। এরপর ২৩ মার্চ ক্রাইস্টচার্চে দ্বিতীয় ওয়ানডে। শেষ ওয়ানডেটি ২৬ মার্চ ওয়েলিংটনে। ওয়ানডে সিরিজ শেষে ২৮ মার্চ হ্যামিল্টনে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি হবে নেপিয়ারে ৩০ মার্চ। অকল্যান্ডে ১ এপ্রিল সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি। সিরিজের জন্য এরই মধ্যে ২০ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বিসিবি। পারিবারিক কারণে নিউজিল্যান্ডে যাচ্ছেন না সাকিব আল হাসান। তার পরিবর্তে সুযোগ পেয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। বাংলাদেশ স্কোয়াড : তামিম ইকবাল, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহীম, মোহাম্মদ মিঠুন, লিটন দাস, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, সৌম্য সরকার, নাঈম শেখ, তাসকিন আহমেদ, আল আমিন হোসেন, শরিফুল ইসলাম, হাসান মাহমুদ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান, মেহেদি হাসান মিরাজ, শেখ মেহেদি হাসান, রুবেল হোসেন, নাসুম আহমেদ।

সর্বশেষ সংবাদ
লোহাগাড়ায় কর্মজ্যোতি জিনানন্দ মহাথের জাতীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠান সম্পন্ন উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের মাহেন্দ্রক্ষণকে উদযাপন করবে পুলিশ: আইজিপি রামগড়ে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু এখন বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত খাগড়াছড়িতে যুব রেড ক্রিসেন্ট’র স্বেচ্ছাসেবীদের প্রশিক্ষন কর্মশালার উদ্বোধন বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ : প্রধানমন্ত্রী সোনারগাঁয়ে মাসব্যাপী লোকজ উৎসব বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ১০ দিনের আয়োজন উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার নেত্রী,গণতন্ত্রের মানস কন্যা প্রধানমন্ত্রী (কোভিড-১৯) টিকা নিলেন নিউজিল্যান্ডে ভূমিকম্প, আবারও সুনামির সতর্কতা ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় বিআরটিএ অফিসের কর্মকর্তা নিহত