হোয়াটসঅ্যাপের চেয়েও ভয়াবহ মেসেঞ্জার

পোস্ট করা হয়েছে 22/01/2021-08:07pm:    স্বর্ণালী প্রিয়া ডেক্স প্রতিবেদন:জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপ প্রাইভেসি পলিসি বা গোপনীয়তার নীতিমালায় পরিবর্তন আনার ঘোষণার সাথে সাথে সমালোচনা ঝড় ওটে সর্বমহলে। হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর ইনস্টাগ্রাম ও ফেসবুকের ডেটাও সংরক্ষণ করতে চায় ফেসবুকের মালিকাধীন অ্যাপটি। কিন্তু এর চেয়ে ভয়াবহ রখমের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে ফেসবুকের মেসেঞ্জার নিয়ে। ফেসবুকের মেসেঞ্জার কতটা বেশি ঝুঁকিপূর্ণ–এ সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ফোবর্স। এতে এমন সব তথ্য উঠে এসেছে, যা জানলে কোনো সচেতন ব্যক্তি কখনও অ্যাপটি ব্যবহার করতে চাইবেন না। ব্যবহারকারীরা ‘ফ্রি’ সেবা পেলেও গোপনে তাদের বিভিন্ন তথ্য দিয়েই বাণিজ্যিক ফায়দা তুলে নিচ্ছে ফেসবুক। এসব তথ্যকে পুঁজি করে নিজেদের ব্যবসাকে বড় করেছে, এমনটাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা। ফেসবুক ও মেসেঞ্জারে আমরা যা কিছুই করছি, সবই তারা নিজেদের বাণিজ্যিক প্রয়োজনে ব্যবহার করছে। এর আগেও বড় বড় টেক জায়েন্ট কর্তারা ফেসবুকের গোপনীয়তার নীতিমালা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। কিন্তু নিজেদের অবস্থান খুব একটা নড়চড় করেনি সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্টটি। নীতিমালা নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ আলোচনায় আসার পর লাখ লাখ গ্রাহক বিকল্প অ্যাপ সিগনাল, বিআইপি ও টেলিগ্রামে চলে যাচ্ছে। এর জের ধরে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে ফেসবুকের নানা অনিয়ম ও অসততা নিয়ে জোরালোভাবে তথ্য-প্রতিবেদন প্রকাশ পাচ্ছে। হোয়াটসঅ্যাপ চলমান বিপর্যয় সামলাতে না পারলে এর নেতিবাচক প্রভাব নিশ্চিতভাবেই ফেসবুকের মেসেঞ্জারের ওপরও পড়বে বলে জানান বিশেষজ্ঞরা।

সর্বশেষ সংবাদ
ডক্টর শাচা ব্লুমেন, ফার্স্ট সেক্রেটারী, অস্ট্রেলিয়া হাইকমিশন, বাংলাদেশ কর্তৃক ইপসা সিভিক প্রকল্প কার্যক্রম পরিদর্শন বাংলাদেশ যে এগিয়ে যাচ্ছে সেই অগ্রযাত্রা কেউ থামাতে পারবেনা: প্রধানমন্ত্রী এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও স্পিকারের শোক ভারত-বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক অটুট থাকবে (সিএমপি) উপ-কমিশনার পদের ৮ কর্মকর্তার দফতর পরিবর্তন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম আর নেই জন্মলগ্ন থেকে বিএনপি গণতন্ত্রের মুখোশের আড়ালে গণতন্ত্র হত্যা:সেতুমন্ত্রী আজ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে সৌজন্য সাক্ষাত করেন অষ্ট্রেলিয় হাইকমিশনার জেরেমি ব্রুয়ার আগামী ১১ এপ্রিল পাপুলের আসনে উপনির্বাচন আগামী ২৮ মার্চ পর্যন্ত জার্মানিতে লকডাউনের মেয়াদ বাড়াল