আজ একুশে পদকজয়ী নাট্যকার ও অভিনেতা আতাউর রহমানের জন্মবার্ষিকী

পোস্ট করা হয়েছে 18/06/2020-11:05am:    আজ বৃহস্পতিবার(১৮জুন)একুশে পদকজয়ী নাট্যকার ও অভিনেতা আতাউর রহমানের জন্মবার্ষিকী। তিনি ১৯৪১ সালের ১৮ জুন নোয়াখালীতে জন্মগ্রহণ করেন। প্রায় ৬০ বছরের বেশি সময় ধরে তিনি নাট্যচর্চায় যুক্ত রয়েছেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ পরবর্তী মঞ্চনাটক আন্দোলনের অগ্রদূত তিনি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকাবিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর আতাউর রহমান ১৯৬৮ সালে নাগরিক নাট্য সম্প্রদায় প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯৭২ সালে   মাইকেল মধুসূদন দত্তের ‘বুড়ো শালিকের ঘাড়ে রোঁ’ নাটকটির মাধ্যমে নাট্য নির্দেশক হিসেবে আবির্ভূত হন তিনি। নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের এই প্রতিষ্ঠাতা ‘গডোর প্রতীক্ষায়’, ‘গ্যালিলিও’, ‘ঈর্ষা’, ‘রক্তকরবী’, ‘ক্রয়লাদ ও ক্রেসিদা’, ‘এখন দুঃসময়’, ‘অপেক্ষমান’- এর মতো নাটকগুলোও নির্দেশনা দিয়েছেন। তিনি ‘আগল ভাঙার পালা’, ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’, ‘ম্যাকবেথ’, ‘গডোর প্রতীক্ষায়’, ‘বাংলার মাটি বাংলার জল’, ‘নারীগণ’, ‘রুদ্র রবি ও জালিয়ানওয়ালাবাগ’ নাটকগুলো নির্দেশনা দিয়েছেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের খণ্ডকালীন শিক্ষকতার পাশাপাশি ‘প্রজাপতি নিবন্ধ’, ‘মঞ্চসারথির কাব্যকথা’, ‘নাটক করতে হলে’, ‘নাট্যপ্রবন্ধ বিচিত্রা’, ‘লেখনী’সহ নানা বই প্রকাশ করেছেন। বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশন, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, আফ্রো-এশিয় গণসংহতি পরিষদের সাবেক সদস্য একইসঙ্গে বাংলাদেশ নাটকের আপিল কমিটি ও চলচ্চিত্র জুরি বোর্ডের সদস্য হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। ইন্টারন্যাশনাল থিয়েটার ইনস্টিটিউটের বাংলাদেশ শাখার পরে বিশ্বশাখার সভাপতিও ছিলেন নাট্যব্যক্তিত্ব আতাউর। ২০০১ সালে একুশে পদকপ্রাপ্তির পাশাপাশি তিনি ‘গ্লোরিয়াস সান’, ‘ভ্যালিয়েন্ট সান’, ‘মীর মকসুদ উল সালেহীন বজলুল করিম পদক’, ‘মুনীর চৌধুরী’ সম্মাননা পেয়েছেন।  সেই সঙ্গে আতাউর রহমান আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য।  

সর্বশেষ সংবাদ