চট্টগ্রামে জমজমাট বসন্ত ও ভালোবাসার উৎসব

পোস্ট করা হয়েছে 14/02/2020-01:34pm:    নিবিড় অন্তরতর বসন্ত এলো প্রাণে...’ স্লোগানে চট্টগ্রাম নগরীতে জমজমাট হয়ে উঠেছে বসন্ত উৎসব। সকাল থেকেই নগরীর সর্বস্তরের সংস্কৃতিকর্মীদের আনাগোনা শুরু হয়। চট্টগ্রাম : ‘নিবিড় অন্তরতর বসন্ত এলো প্রাণে...’ স্লোগানে চট্টগ্রাম নগরীর সবত্রই জমজমাট হয়ে উঠেছে বসন্ত উৎসব।শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকেই নগরীর সর্বস্তরের সংস্কৃতিকর্মীদের আনাগোনা শুরু হয়। ছেলেদের পরনে ছিল বাহারি পাঞ্জাবি, মেয়েদের পরনে বাসন্তী শাড়ি আর মাথায় হলুদ গাঁদার খোঁপা। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে নানা বয়সী মানুষের ভিড়। নাচ, গান, আবৃত্তি আর অর্কেস্ট্রার সুর মুর্ছনা উপভোগ করেন তারা। পাশাপাশি বিভিন্ন স্টল থেকে রকমারি বই সংগ্রহ আর বাংলার চিরায়ত পিঠাপুলির স্বাদ নিতে দেখা যায়। বোধন আবৃত্তি পরিষদ আয়োজিত দিনব্যাপী এ উৎসবে বর্ণাঢ্য বসন্ত উৎসবে ও ছড়িয়েছে ভালোবাসার রং।।নগরের আন্দরকিল্লায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নগর ভবনের উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে ‘নিবিড় অন্তরতর বসন্ত এলো প্রাণে’ স্লোগানে বোধন বসন্ত উৎসবে মেতেছে সবাই।বোধন আবৃত্তি পরিষদের বসন্ত উৎসব এ বছর ১৫ বছরে পদার্পণ করছে। বিকালে বসন্ত বরণ শোভাযাত্রা, আবৃত্তি, কথামালা, সঙ্গীত, নৃত্য, যন্ত্র সঙ্গীত, ঢোল বাদন ও পিঠাপুলির সমারোহে দিনব্যাপী এ উৎসব সাজানো হয়েছে। সকালে উৎসব উদ্বোধন করেন অধ্যাপক রীতা দত্ত। আজ সকাল ৮টায় শিল্পী দোলন কানুনগোর মোহন বীণার সুরে শুরু হয়েছে নগরের জামালখান ডা. এমএ হাশেম চত্বরের প্রথম সম্মিলিত বসন্ত উৎসব। রবীন্দ্র সংগীত পরিবেশন করেন রক্তকরবীর শিল্পীরা। আজ শুধু যুগোল বন্ধুর জন্য নয়। মা-বাবা, ভাইবোন, প্রিয় সন্তান , বন্ধু এমনকি প্রিয় পোষা প্ররানীর জন্যও ভালোবাসায় আপ্লুত হন সবাই। এ উৎসবে খ্যাতিমান শিল্পী ফকির শাহাবুদ্দিন একক সংগীত ও অভিনয় শিল্পী তারিন একক নৃত্য পরিবেশন।এ উৎসবে দলীয় সংগীত পরিবেশন করছেন সঙ্গীত ভবন, আনন্দধ্বনি, স্বরলিপি, সঙ্গীত পরিষদ, অদিতি সঙ্গীত নিকেতন, শিল্পী সংসদ ও নটরাজ সঙ্গীত একাডেমি। একক সঙ্গীত পরিবেশন করবেন সনজিত আচার্য, কল্পনা লালা, কল্যাণী ঘোষ, ইকবাল হায়দার, শঙ্কর দে, শুভ্রা চৌধুরী, ফাহমিদা রহমান, শ্রেয়সী রায়, ফরিদ বঙ্গবাসী, হাসান জাহাঙ্গীর, শীলা চৌধুরী, মিতালী রায়, দিদারুল ইসলাম, ইপ্সিতা মজুমদার, মধুলিকা মণ্ডল ও সঞ্জয় পাল। নৃত্য পরিবেশনে স্কুল অব ওরিয়েন্টাল ডান্স, ঘুঙুর নৃত্যকলা একাডেমি, ওড়িশী অ্যান্ড টেগোর ডান্স মুভমেন্ট সেন্টার, নটরাজ, সুরাঙ্গন বিদ্যাপীঠ ও সঞ্চারী নৃত্যকলা একাডেমি। আবৃত্তি পরিবেশনে সঞ্জীব বড়ুয়া, শুভ্রা বিশ্বাস, কংকন দাশ, মছরুর হোসেন, মিশফাক রাসেল, মাহবুবুর মাহফুজ, এহতেশামুল হক, শামীমা শীলা, সেলিম ভূঁইয়া, শুভাশিস শুভ, নাহিদ নেওয়াজ, সাদ হাসান, উমেসিং মারমা, পলি ঘোষ, শেখ ফাইরুজ দুর্দানা, শম্পা বড়ুয়া, লিপি সেন ও অনির্বাণ চৌধুরী। উপস্থাপনায় ছিলেন দিলরুবা খান, দেবাশীষ রুদ্র প্রমুখ।

সর্বশেষ সংবাদ