বাজার ‘স্থিতিশীল রাখতে ডিসি, এসপির সহযোগিতা চেয়ে চিঠি

পোস্ট করা হয়েছে 13/06/2015-09:27am:    ।
ঢাকা অফিসঃ রোজায় ভোগ্যপণ্যের সরবরাহ ও দাম স্থিতিশীল রাখতে, চাঁদাবাজি বন্ধে এবং পরিবহন ব্যবস্থা নির্বিঘ্ন করতে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারদের সহযোগিতা চেয়েছে কৃষি বিপণন অধিদপ্তর।।
প্রতিবছর রোজায় পেঁয়াজ, আলু, বেগুন, ডাল, কাঁচা মরিচ, লেবু, ভোজ্যতেল, চিনি, মুড়ি, দুধ, খেঁজুর এবং বিভিন্ন ধরনের মসলা ও ফলের চাহিদা বেড়ে দ্বিগুণ হয়ে যায়। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ে দাম।।
অধিদপ্তরের পরিচালক মাহবুব আহমেদ সম্প্রতি জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারদের চিঠি দিয়ে এসব বিষয়ে সহযেগিতা চান। ।
কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের পরিচালক তার চিঠিতে বলেছেন, “রমজান মাস আসন্ন। সাধারণত রমজানের শুরুতে কৃষিপণ্যসহ সব ধরনের ভোগ্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। কৃষি বিপণন অধিদপ্তর কৃষিপণ্যের বাজার দর ও সরবরাহ স্থিতিশীল রাখার লক্ষ্যে সম্ভব সকল ধরনের প্রয়াস অব্যাহত রেখেছে।” ।
চিঠিতে বলা হয়, কৃষিপণ্যসহ সব ধরনের ভোগ্যপণ্যের বাজার দর ও সরবরাহ স্থিতিশীল রাখার স্বার্থে পণ্য চলাচল নির্বিঘ্ন ও চাঁদা আদায় রোধে পদক্ষেপ নেওয়া ‘প্রয়োজন’।। প্রতিবছর রোজায় পেঁয়াজ, আলু, বেগুন, ডাল, কাঁচা মরিচ, লেবু, ভোজ্যতেল, চিনি, মুড়ি, দুধ, খেঁজুর এবং বিভিন্ন ধরনের মসলা ও ফলের চাহিদা বেড়ে দ্বিগুণ হয়ে যায়। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ে দাম। কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের পরিচালক তার চিঠিতে বলেছেন, “রমজান মাস আসন্ন। সাধারণত রমজানের শুরুতে কৃষিপণ্যসহ সব ধরনের ভোগ্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। কৃষি বিপণন অধিদপ্তর কৃষিপণ্যের বাজার দর ও সরবরাহ স্থিতিশীল রাখার লক্ষ্যে সম্ভব সকল ধরনের প্রয়াস অব্যাহত রেখেছে।” চিঠিতে বলা হয়, কৃষিপণ্যসহ সব ধরনের ভোগ্যপণ্যের বাজার দর ও সরবরাহ স্থিতিশীল রাখার স্বার্থে পণ্য চলাচল নির্বিঘ্ন ও চাঁদা আদায় রোধে পদক্ষেপ নেওয়া ‘প্রয়োজন’। পণ্যের অবাধ চলাচল বিঘ্নিত ও অপ্রদর্শিত ব্যয় বৃদ্ধি পেলে পণ্যের পরিবহন ব্যয় আশাতীতভাবে বৃদ্ধি পায়। ফলশ্রুতিতে ভোক্তা পর্যায়ে পণ্যের মূল্য মাত্রাতিরিক্তভাবে বৃদ্ধি পেয়ে থাকে।
পণ্য পরিবহন নির্বঘ্ন করতে এবং ও চাঁদাবাজি বন্ধে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারদের সহযোগিতা চাওয়ার পাশাপাশি আলাদা চিঠিতে জেলা পর্যায়ে টাস্কফোর্স কমিটির কার্যক্রম ও বাজার পর্যবেক্ষণ জোরদার করার সুপারিশ করেছে বিপণন অধিদপ্তর। চাঁদ দেখা গেলে ১৮ জুন থেকে বাংলাদেশে রোজা শুরু হতে পারে।

সর্বশেষ সংবাদ