ভূমিদুস্যুদের দৌরাত্ম কোনভাবেই সহ্য করা হবে না - মুজিবুর রহমান এম পি

পোস্ট করা হয়েছে 07/10/2019-08:07pm:    আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী ও ভূমিদুস্যুদের দৌরাত্ম কোনভাবেই সহ্য করা হবে না বলে মন্তব্য করেন ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন। সোমবার সকালে উপজেলা হলরুমে মাসিক আইনশৃঙ্খলা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এ মন্তব্য করেন। মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন বলেন, ‘বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগের শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছেন। এতদিন যারা ডুবিয়ে ডুবিয়ে পানি খেয়ে অন্য দল থেকে এসে নিজের স্বার্থ আদায় করেছেন, আওয়ামী লীগের নাম ব্যবহার করেছেন, তারা সাবধান হয়ে যায়। এছাড়াও বর্তমান সরকার দলীয় আওয়ামী লীগের নাম ব্যবহার করে যারা অবৈধ পথে ভূমি দখল করে জনগণকে ঠকিয়েছেন, এখনও দৌরাত্ম দেখাচ্ছেন তাদের দৌরাত্ম আর সহ্য করা হবে না।’তিনি আরো বলেন, ‘প্রশাসনকে বলব যারা আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র না মেনে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে নিজেদের সরকার দলীয় নেতা দাবি করেন তাদের বিরুদ্ধে জরুরী ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে।’ এমপি নিক্সন চৌধুরী বলেন, ‘যারা সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কারণে অকারণে মারধরসহ হুমকি-ধমকি দিয়ে থাকেন তাদের বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে। সকলকে মনে রাখতে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা দেশকে উন্নয়ন করে স্বাবলম্বীর দিকে নিয়েছেন। একই সঙ্গে দুর্নীতি ও মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন। সেই যুদ্ধে আমরা সকলেই তার সহযোদ্ধা। প্রধানমন্ত্রীর হাতকে আরো শক্তিশালী করে দেশকে আগামী প্রজন্মের জন্য সুন্দর করে তৈরি করতে হবে।’ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুকতাদিরুল আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম হাবিবুর রহমান বলেন, ‘সরকারের শুদ্ধি অভিযানকে জনগণসহ সকলেই গ্রহণ করে নিয়েছেন। প্রশাসনে কোন ধরনের দুর্নীতির অভিযোগ আসলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সরকারে উন্নয়নমূলক কাজ যথাযথভাবে কর্মকর্তাদের পালন করতে হবে। সরকারি জায়গাসহ কুমার নদী দখলদারদের হাত থেকে উদ্ধার করতে প্রশাসনের দ্রুত পদক্ষেপ নিতে আহ্বান জানান তিনি।’ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিমাদ্রী খীসা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) গাজী রবিউল ইসলাম, ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী সাঈদুর রহমান, ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতাউর রহমান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডাক্তার খালেদুর রহমান মিয়া, উপজেলা আবাসিক প্রকৌশলী ফরিদুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মানস বসু, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোজফ্ফার রহমান, উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ প্রমুখ।

সর্বশেষ সংবাদ