উন্নয়নের ছোঁয়ায় পাল্টে যাচ্ছে ফিরিঙ্গিবাজার এয়াকুবনগরের চেহারা

পোস্ট করা হয়েছে 18/01/2018-08:45am:    উন্নয়নের ছোঁয়ায় পাল্টে যাচ্ছে ফিরিঙ্গিবাজার, এয়াকুবনগরের চেহারা। সড়ক পথ উন্নয়ন, সৌন্দর্র্য্য বর্ধন, নালা নির্মাণ ও সংস্কারের প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে সিটি কর্পোরেশন। কোতোয়ালী মোড় থেকে অভয়মিত্র ঘাট রোড এবং ব্রিজঘাট রোডের উন্নয়ন, সড়ক পথ কার্পোটিং এবং সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ চলছে জোরেশোরে। ৫ কোটি ১৭ লাখ টাকা ব্যয়ে এসব কাজ হচ্ছে। তা সম্পন্ন হলে এই এলাকার রূপ পাল্টে যাবে। ফিরিঙ্গিবাজার ওয়ার্ডের ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা এয়াকুবনগর। প্রায় ১০ হাজার মানুষ এখানে একেবারে ঘিঞ্জি পরিবেশে বাস করেন। একেবারে সংকীর্ণ তাদের চলাচলের পথ। আর বর্ষায় জলাবদ্ধতা তাদের মহাসমস্যায় ফেলে। গতকাল সরেজমিনে এ এলাকায় গেলে স্থানীয়রা জানালেন, সামান্য বৃষ্টিপাত হলে তারা চলাচল করতে পারেন না। এক চরম দুঃসহ অবস্থার মধ্যে তখন তাদেরকে বসবাস করতে হয়। বছরের পর বছর সিটি কর্পোরেশন তাদের সমস্যার প্রতি কোন নজর দেয়নি। এই প্রথমবারের মত কর্পোরেশনের সুনজর পড়েছে এলাকাটির প্রতি। একযোগে বেশকিছু উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে কর্পোরেশন। এয়াকুবনগর রোডে নির্মাণ করা হচ্ছে আরসিসি নালা। ২ কোটি ১৬ লাখ টাকা ব্যয়ে কাজ চলছে পুরোদমে। এয়াকুবনগর রোডেরও উন্নয়ন করা হচ্ছে সাড়ে ৭২ লাখ টাকা খরচে। ফিরিঙ্গিবাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব–এর সাথে যোগাযোগ করা হলে জানালেন, ওয়ার্ডের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চলছে। একটি সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তুলতে চাই ফিরিঙ্গিবাজারকে। সিটি কর্পোরেশন বেশকিছু প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। আগামীতে আরও উন্নয়ন প্রকল্প নেয়া হবে। ১০ তলাবিশিষ্ট কিচেন মার্কেট নির্মাণ করা হবে। ৩৩ গ–া জমির ওপর প্রায় ৩২ কোটি টাকা ব্যয়ে এই মার্কেট তৈরি হবে। বিএমডিএফ এবং সিটি কর্পোরেশন যৌথভাবে নির্মাণ ব্যয় বহন করবে। ৯০ শতাংশ ব্যয় জোগান দেবে বিএমডিএফ। আর ১০ শতাংশ দেবে সিটি কর্পোরেশন। মিডওয়াইফারি ইনস্টিটিউটের শৌচাগার সংস্কার কাজ চলছে ৬৫ লাখ টাকা ব্যয়ে। চলতি অর্থবছরে সিটি কর্পোরেশন আরও যেসব প্রকল্প নিয়েছে সেগুলোর মধ্যে রয়েছে–সাড়ে ২২ লাখ টাকায় বারমাসিয়া খালের মাটি উত্তোলন ও অপসারণ, ২১ লাখ ১৫ হাজার টাকায় বান্ডেল খাল, কবি নজরুল ইসলাম রোডের উভয় পাশের নালা, সোহরাওয়ার্দী রোডের উভয় পাশের নালার মাটি উত্তোলন, ৫৭ লাখ ৫৩ হাজার টাকায় এবি দাস লেইনের উন্নয়ন ও নালার কাজ। মেরিনার্স রোডে ফিশারিঘাট ব্রিজ থেকে চাকতাই ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তা ও নালা উন্নয়ন করা হচ্ছে। কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব আশা করেন যে এসব প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে এলাকাবাসীর যোগাযোগ ব্যবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তন আসবে এবং বর্ষার দুর্ভোগ থেকে পরিত্রাণ মিলবে।

সর্বশেষ সংবাদ
ক্ষতিগ্রস্ত ‘উদয়ন এক্সপ্রেস’ ট্রেনের ৬টি বগি চট্টগ্রাম রেলস্টেশনে চন্দনাইশে পেঁয়াজ ভর্তি ট্রাক উল্টে ডোবায় ট্রেনচালকদের উন্নত প্রশিক্ষণ প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী শিগগিরই পেঁয়াজের মূল্য ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে আসবে: শিল্পমন্ত্রী কৃষিনির্ভর না থেকে শিল্পায়নের পথে যান: প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রাম-৮ আসনে আসন্ন নির্বাচনে মোছলেম উদ্দিনের দোয়া কামনা নগরীতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দুই গ্রুপের মারামারি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্রেন দূঘটনায় তিনটি তদন্ত কমিটি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্রেন দূঘটনায় তিনটি তদন্ত কমিটি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মন্দভাগ যাত্রীবাহী দুই ট্রেনের মধ্যে ভয়াবহ সংঘর্ষে ১৭ জন নিহত