নাজমুল ১৯ বছর গবেষণায় ৮৫০ জাতের ধান উদ্ভাবন করলেন

পোস্ট করা হয়েছে 17/05/2015-01:44pm:    বগুড়া সংবাদদাতাঃ বহু উচ্চ ফলনশীল জাতের ধানের উদ্ভাবক বগুড়ার বিজ্ঞানী নাজমুল হক শাহিন। ঝড়-বৃষ্টি, খরা, লবণাক্ততা সহনশীল ও বিভিন্ন অঞ্চলে চাষের উপযোগী ৮৫০ জাতের ধান উদ্ভাবন করেছেন এই গবেষক। চাষিরা এসব জাত চাষ করে ভালো লাভ পাবেন বলে আশাবাদী তিনি। ধানের ফলন বৃদ্ধি ও পরিবেশের প্রতিকূলতা থেকে রক্ষা- দুই দিক মাথায় রেখেই ১৯ বছর ধরে গবেষণা চালিয়ে আসছেন কৃষিবিদ ড. নাজমুল হক শাহিন। টেকসই ধানের জাত উদ্ভাবনে নেত্রকোনার দূর্গাপুরের দোলা আমনের জাত উন্নয়নে সফল হয়েছেন তিনি। কৃত্রিম শংকরায়ন করে দেশি ধানের এই জাতটি থেকে উচ্চ ফলনশীল ধানের জাত উদ্ভাবন করেছেন তিনি। ফলন বেশি হওয়ার পাশাপাশি প্রতিকূলতায় টিকে থাকার সব সহজাত বৈশিষ্ট্যও থেকে গেছে এসব জাতে। বিভিন্ন অঞ্চলের জন্য ৬৫০ টি নতুন ধানের জাত উদ্ভাবন করেছেন তিনি। নাজমুল হক শাহিনের ব্যক্তিগত প্রচেষ্টায় উদ্ভাবিত এসব জাতের মাঠ পর্যায়ে গড় ফলন বিঘায় ৩২ মণ। দেশীয় আবহাওয়া ও মাটিতে চাষের উপযোগী বলে এতে সার-কীটনাশকের খরচও লাগবে কম। আমন-বোরো দুই মৌসুমেই এসব ধান চাষ করা যাবে বলে জানিয়েছেন উদ্ভাবক নাজমুল হক। নতুন জাতগুলো থেকে বিঘায় গড়ে ১৫ হাজার টাকা বেশি লাভ করতে পারবেন চাষিরা

সর্বশেষ সংবাদ